সাপাহারে গোপনে কবর প্রদান করে দখলদারকে বিপাকে ফেলেছেন প্রতিপক্ষরা

মোরশেদ মন্ডল,সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি :
নওগাঁর সাপাহারে ৯৯ বছরের পত্তন রেজিষ্ট্রি জমিতে গোপনে কবর দিয়ে কবরস্থান বলে জোর পূর্বক দখলের অপচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিপক্ষরা।বিপাকে পড়েছে উক্ত জমির দখলদার তারেক রহমান।
তারেক রহমান জানায়, ওড়নপুর মৌজায় তারেকের বাবার কোন জমি-জমা না থাকায় উক্ত সম্পত্তি যার দাগ নং ৪৭২ খতিয়ান নং ২৩৭, মৌজা ওড়নপুর, জমির পরিমান ০.২৩ শতক । উক্ত জমি সরকার ৯৯ বছরের পত্তন রেজিষ্ট্রি করে দেয় তারেকের পিতা নজিমুদ্দীনের নামে। রেজিষ্ট্রি হওয়ার পরবর্তী সময়কালে সরকারী ভাবে খাজনা খারিজ সব কিছু করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় তারেক রহমান উক্ত জমি দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগ দখল করে আসছিলো। এরই মধ্যে প্রতিপক্ষ ওড়নপুর গ্রামের মৃত মোস্তফার ছেলে মোকছেদ (৬০), তার সহোদর মোতালেব (৫০) সহ আরো অনেক জন একত্রিত হয়ে ১৫-১৬ বছর আগে জোগ-সাজসে তাদের পিতা মোস্তফার মৃত্যু হলে তারেকের অগোচরে তাকে দাফন করে। এবং পরবর্তী সময়ে সেটিকে কবরস্থান বলে অপপ্রচার চালিয়ে বিপাকে ফেলানোর একটা ঘোর চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিপক্ষরা। মূলত: উক্ত সম্পত্তিতে কোন প্রকার কবর ছিল না। তাদের পত্তনের অনেক পরে বাদির পরিবারের অন্যত্র কবর স্থান নির্ধারিত জায়গা থাকার পরেও গোপনে উক্ত সম্পত্তির একাংশে একটি কবর দিয়েছে। এবং তারেক সহজ-সরল মনোভাবাপন্ন হওয়ায় তার সরলতার একটা সুযোগ লুটছে প্রতিপক্ষরা।
এ বিষয়টি নিয়ে উপজেলা সহকারী ভ‚মি কমিশনার (এসিল্যান্ড) সোহরাব হোসেনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, “ মূলত তারেকের বসতবাড়ীর কাজ সম্পূর্ণ বন্ধ করা হয়নি, উক্ত জমি কবরস্থান এমন অভিযোগ পাওয়ার পর কবরের নির্ধারিত স্থান বাদ দিয়ে বাঁকী জায়গাতে কাজ করার জন্য বলা হয়েছে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *