নাগেশ্বরীর পাখিউড়া সীমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে একজন নিহত

নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ঃ
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের পাখিউড়া সীমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে জামাল (১৯) নামের এক বাংলাদেশি গরু চোরাকারবারী নিহত হয়েছে। নিহত জামাল একই ইউনিয়নের কালাইয়ের চর গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে।
স্থানীয়রা জানায় শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে একদল চোরাকারবরী গরু আনার জন্য কালাইয়ের চর সীমান্তের আন্তর্জাতিক পিলার ৩৯/৪টি এর নিকট দিয়ে ভারতের আসামের অভ্যন্তরে মন্ত্রীর চরে যায়। এসময় বিএসএফ তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। এসময় জামালে ডান পাশের পঁাজরে গুলি লেগে বাম পাশের পঁাজর ভেদ করে চলে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে নিয়ে বাড়ি থেকে সটকে পড়ে। বিকাল পর্যন্ত জামালসহ তার পরিবারের লোকজনের সন্ধান মেলেনি। বিকাল চারটায় জামালের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসে পরিবারের লোকজন। পরিবারের লোকজনদের দাবী গুলীবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রামে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় পথে মারা যায় জামাল।
নারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবর রহমান স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বিএসএফ এর গুলিতে জামালের মারা যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
নারায়নপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য শাহাদৎ হোসেন জানান, শনিবার ভোরে পাখিউড়া সীমান্ত পথে গরু চোরাচালান করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে জামাল নামের এক বাংলাদেশি ডাঙ্গোয়াল ( গরু পাচারের রাখাল) নিহত হওয়ার খবর পেয়ে তার বাড়িতে গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি। পরে বিকাল চারটায় মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসে পরিবারের লোকজন।
কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্ (ওসি) মামুন অর রশিদ ওই পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর হাসপাতালে নেয়ার পথে জামালের মৃত্যু হয়। বিকালে মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসে। পরে সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্দের জন্য মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।
এ প্রসঙ্গে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) কুড়িগ্রাম ২২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে.কর্নেল মো. মোহাম্মদ জামাল হোসেন জানান, নারায়নপুর সীমান্তের পাখিউড়া বর্ডার আউট পোস্টের (বিওপি) অধীন সীমান্তে এক রাউন্ড গুলির শব্দ পাওয়া গেছে বলে জানতে পেরেছি। জামাল নামের একজন গুলবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও তার মরদেহ স্পটে পাওয়া যায়নি। বিএসএফ কিংবা চোরাকারবারীদের গুলিতে সে মারা গেছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *