ভূরুঙ্গামারীতে জনতা ব্যাংক কর্তৃক এফডিআর এর অর্থ বিতরন

mail.google

স্টাফ রিপোর্টার, ভূরুঙ্গামারীঃ
কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী জনতা ব্যাংকে মৃত গ্রাহকের জমাকৃত অর্থ (এফডিআর) ওয়ারিশগনের মাঝে বিতরন করা হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে জনতা ব্যাংক লিঃ ভূরুঙ্গামারী শাখায় এ অর্থ বিতরন করা হয়।
জানা গেছে, উপজেলার দেওয়ানেরখামার গ্রামের বজলুর রহমান ১৯৯১ সাল থেকে দিনমজুরি করে প্রতিদিন ২০ টাকা করে জনতা ব্যাংক ভূরুঙ্গামারী শাখার এসিষ্টেন্ট অফিসার শহিদুল ইসলামের নিকট জমা রাখতো। তিনি উক্ত টাকা দিয়ে মাসে ২টি ডিপিএস চালু করেন। পর্যায়ক্রমে উক্ত টাকা জনতা ব্যাংক ভূরুঙ্গামারী ও রায়গঞ্জ শাখায় লেনদেন করে তা বৃদ্ধি পেয়ে ২ লাখ টাকায় উন্নীত হয়। বিষয়টি উক্ত বজলুর রহমানের পরিবারের কেহই জানতো না। গত ২৭ মার্চ উক্ত গ্রাহক ব্রেন ষ্ট্রোক করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরন করলে ব্যাংক কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম মৃত ব্যক্তির পরিবারকে জমাকতৃ অর্থের বিষয়টি জানিয়ে দেন। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল বুধবার ওই মৃত ব্যক্তির জমাকৃত ২ লাখ ৩৮ হাজার ৩শ ১৫ টাকা তার ওয়ারিশগনের মাঝে বিতরন করা হয়। এ টাকা বিতরন করেন জনতা ব্যাংক ভূরুঙ্গামারী শাখার ব্যবস্থাপক জিয়াউর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এসিসিএফ সিএস লিঃ এর ব্যবস্থাপক জিন্নাত আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম ব্যাপারী, আশরাফুল আলম ঝন্টু, হাফেজ রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিক এ এস খোকন প্রমুখ।

এ ব্যাপারে জনতা ব্যাংক লিঃ ভূরুঙ্গামারী শাখা ব্যবস্থাপক জিয়াউর রহমান বলেন, ব্যাংক কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম ওই মৃত ব্যক্তির গচ্ছিত টাকাগুলোর নমিনী ছিলেন। মূলতঃ তার সততার কারনেই মৃত ব্যক্তির গচ্ছিত টাকাগুলো ওয়ারিশদের মাঝে বিতরন করা হয়েছে। এটা আমাদের একজন ব্যাংক কর্মকর্তার সততার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *