কুড়িগ্রামের সাবেক ডিসি সুলতানা পারভীনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :
কুড়িগ্রামের সাবেক জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে নিয়োগ প্রদানের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে জেলার ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাগণ। বুধবার দুপুরে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে জেলার সকল ইউনিয়ন সেন্টারের উদ্যোক্তাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন, ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোগতা কেন্দ্রীয় ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারী মাহাতাব আলী, জেলা ফোরামের সভাপতি সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক নবিউল ইসলাম, সদস্য হাসিনা খাতুন প্রমূখ।
মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০১০ সালের ১১ নভেম্বর ৪ হাজার ৫৫৪টি ইউনিয়ন পরিষদে তথ্যসেবা কেন্দ্র চালু করে। এসব তথ্যসেবা কেন্দ্রে দুইজন করে উদ্যোক্তা বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করে আসছে। কিন্তু ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর দেশের ২০০০ ইউনিয়ন পরিষদে হিসাব সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর পদে জনবল নিয়োগের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় পরিপত্র জারি করলে এর বিরুদ্ধে কুড়িগ্রামের ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের ২৬ জন উদ্যোক্তা মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন দাখিল করেন যার রিট পিটিশন নং ১২৮৬৫/২০১৯।
এর প্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের ২৬ নভেম্বর সুপ্রীমকোর্টের আপিল বিভাগে রিটের শুনানী শেষে রিট পিটিশনারদের অনুকূলে পদ সংরক্ষন রাখতে ছয় মাসের স্থগিতাদেশসহ ডাইরেক্টশন রুল জারি করেন সুপ্রীম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগ।
এ রুল উপেক্ষা করে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন ওইসব পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করলে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা নিয়োগ বন্ধের জন্য হাইকোর্টের মাধ্যমে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসককে উকিল নোটিশ পাঠায়। কিন্তু তা উপেক্ষা করে তড়িঘড়ি করে উদ্যোক্তাদের বাদ দিয়ে নিয়োগ প্রদান করেন জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন। মানব বন্ধনে হাইকোর্টের আদেশ মেনে এসব নিয়োগ স্থগিত করে উদ্যোক্তাদের নিয়োগ দেয়ার দাবী জানান বক্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *