নাগেশ্বরী কচাকাটায় ভুয়া প্রধান শিক্ষক সেজে ৬ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাত

নাগেশ্বরী প্রতিনিধিঃ নাগেশ্বরী কচাকাটায় ভুয়া প্রধান শিক্ষক সেজে উপবৃত্তির ৬ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাতের অভিযোগ। অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে নাগেশ্বরী উপজেলার কেদার ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর দারুস সুন্নত স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মোঃ মফিজুল হক গত ১৫ নভেম্বর/২০০১ইং তারিখে নিয়োগ প্রাপ্ত হয়ে গত ১৬ নভেম্বর/২০০১ইং তারিখে যোগদান করে দায়িত্ব পালন করছে। প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন বিল বেতন না হওয়ায় জীবন বাচার তাগিদে শিক্ষকরা বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত থাকেন। এই সুযোগে সহকারী শিক্ষক মোঃ জাকিউল হক বিভিন্ন কৌশলে প্রতিষ্ঠানের সমস্ত কাগজপত্র বাদ দিয়ে নুতন করে ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করে নিজেকে প্রধান শিক্ষক হিসাবে দাবী করে এবং প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ থাকলেও ২০১৮ ইং সাল হইতে ভুয়া ছাত্র-ছাত্রী দেখিয়ে উপবৃত্তির ৬ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা আত্মসাত করছে। এ ব্যাপারে প্রকৃত প্রধান শিক্ষক মোঃ মফিজুল হক গত ১৬ ফ্রেবুয়ারী/২০২০ইং তারিখে নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকতাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেও কোন প্রকার সুফল পাচ্ছেনা বলে অভিযোগ রয়েছে। শুধু তাই নয়,ছাত্র-ছাত্রী না থাকলেও কিভাবে সরকারী উপবৃত্তির বিপুল পরিমান টাকা আত্মসাত করল বিষয়টি সচেতন মহলকে ভাবিয়ে তুলেছে। একটি সুত্র জানিয়েছে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের সঙ্গে উপজেলা শিক্ষা অফিস জড়িত রয়েছে যাহা তদন্ত করলে আসল রহস্য বেড়িয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *