চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে এনজিওর নামে সুদের রমরমা কারবার।। গ্রাহককে হুমকি

ফয়সাল আজম অপু, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় এনজিও’র নামে রমরমা সুদের কারবার বেশ জমে উঠেছে।

নিঃস্ব হচ্ছে নিম্ন আয়ের হতদরিদ্র মানুষ। দেখার যেনো কেউ নেই। এই শ্রেণির মানুষের আহাজারিতে ভারি হয়ে আসছে পরিবেশ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের গুপ্তমানিক গ্রামের জালালের ছেলে মোঃ জাকারিয়ার গড়ে তোলা চাঁদতারা নামে কথিত এনজিও, সমাজ উন্নয়ন সংস্থার ব্যানারে প্রতিষ্ঠিত।
এই এনজিও থেকে রাণীনগর নামোটোলা গ্রামের ইজ্জত আলির ছেলে মোঃ আলম আলী এক লক্ষ টাকা ঋণ গ্রহণ করেন।

এই শর্তেযে প্রতিমাসে ৩ হাজার টাকা লভ্যাংশ হিসেবে ৬ মাসে ১৮ হাজার টাকা এবং পরবর্তিতে লভ্যাংশ দ্বিগুন বাড়িয়ে ৬ হাজার টাকা করে মাসে ২৪ হাজার টাকা সর্বসাকুল্যে ৪২ হাজার টাকা পরিশোধ করেন।

বাকি এক লক্ষ টাকা দিয়ে ঋণ গ্রহিতা আলম স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তির সহায়তায় ঝামেলা মারতে চাইলেও চাঁদতারার পরিচালক মোঃ জাকারিয়া মেনে নেয়নি। মধ্যখানে করোনার মহামারিতে তিন মাস টাকা দিতে না পারায় সে তিন মাসের লাভ ১৮ হাজার টাকাসহ আরো ১ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা পরিশোধ করার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে।

আপোষ-মিমাংসার মাধ্যমে টাকা দিতে ব্যর্থ হলে জাকারিয়া, আলমের পরিবারকে হুমকি প্রদান করে আসছে। আলম বাদি হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। এ নিয়ে আলমের পরিবার আতঙ্কে দিনাতিপাত করছে।

অপরদিকে, জাকারিয়ার নিকট জানতে চাইলে, সম্পূর্ন অস্বীকার করে তিনি বলেন। আমার ২০১৬ সালে এনজিও ছিলো, শর্তপূরণ করতে না পারায় এনজিওর ব্যবসা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। আলমের সাথে টাকার কোনো লেনদেন নাই বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *