রংপুর কারমাইকেল কলেজে প্রাক্তন ছাত্র সমিতির উদ্যোগে মিলন মেলা অনুষ্ঠিত

।।জি এম রাঙ্গা।।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে দেশের বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে থাকা কারমাইকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্ররা প্রিয় প্রাঙ্গনে আসতে শুরু করে। সকাল ১০টায় কারমাইকেল কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে বেলুন উড়িয়ে দিনভর কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি, কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল।

উত্তরের অক্সফোর্ড খ্যাত কারমাইকেল কলেজের ১০৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে রংপুর কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতির উদ্যোগে ৩ শতাধিক প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নিয়ে মিলন মেলা বসেছিল কলেজের বাংলা মঞ্চে।

‘হৃদয়ের টানে ফিরে আসি বার বার’ শ্লোগানকে বুকে ধারণ করে করোনাকালে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুক্রবার দিনভর উদ্যাপন করা হয় এ ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। মেধাবীদের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে জনসম্পদে পরিণত করে দেশের উন্নয়নে কাজে লাগানোর দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করা হয় অনুষ্ঠানে।

এরপর একটি আনন্দ র‌্যালী ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। এরপর কারমাইকেল কলেজের ১০৪ বছর উপলক্ষ্যে বাংলামঞ্চে একটি কেককাটা হয়। কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতি রংপুর আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি আবুল কাসেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, কারমাইকেল কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মোঃ আমজাদ হোসেন, কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতির সাধারণ সম্পাদক রকিবুস সুলতান মানিক। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কারমাইকেল কলেজের সাবেক ভিপি আলাউদ্দিন মিয়া, শহিদুল ইসলাম খুররম, প্রাক্তন শিক্ষার্থী একেএম দৌলত আকবর, মেরিনা লাভলী, আব্দুর রাজ্জাক, কেরামত উল্লাহ বিপ্লব প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ১০৪ বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী কারমাইকেল কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা দেশের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতৃত্ব দিচ্ছে। প্রতি বছর এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে হাজার হাজার মেধাবী শিক্ষার্থী পাস করে বের হচ্ছে। মেধাবী হওয়া স্বত্তে¡ও তারা সঠিক দিক নির্দেশনা, পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে ভালো কোন অবস্থানে যেতে পারছে না। কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতি ওই সকল শিক্ষার্থীদের পথপ্রদর্শক হিসেবে কাজ করবে। সেই সাথে কারমাইকেল কলেজের ঐতিহ্য-ইতিহার সংরক্ষণ করে দেশ-বিদেশে অবস্থান করা কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করবে। এজন্য সকলের অবস্থান থেকে স্বউদ্যোগে সকলকে কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতির পাশে দাঁড়াতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, কারমাইকেল কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতি প্রতিষ্ঠার পর মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তিপ্রদান, অসুস্থ্য শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার জন্য অনুদান, কলেজের মৃত শিক্ষার্থীর পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান, করোনাকালে খাদ্য সামগ্রী বিতরন, রংপুর মেডিকেল কলেজে চিকিৎসকদের জন্য করোনায় নিরাপত্তা সরঞ্জমাদি প্রদানসহ সকল কারমাইকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের একই প্লাটফর্মে আনতে কাজ করে যাচ্ছে। এ সমিতির কাজ ইতোমধ্যে গোটা দেশে প্রশংসিত হয়েছে। এরপর বিকেলে বাংলামঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *