বকশীগঞ্জ সীমান্তে বন্য হাতির তান্ডবে কৃষকের ব্যাপক ক্ষতি

ফিরোজ আল মুজাহিদ বাবু বকশিগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধিঃ

জামালপুর বকশিগঞ্জ ভারত সীমান্ত ঘেঁষে পাহাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ৩০/৩৫টি ভারতীয় বন্য হাতির দল বাংলাদেশের বকশীগঞ্জ উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নের যদুরচর গ্রামে প্রবেশ করে পাকা ধানের উপর তান্ডব চালাচ্ছে। মাত্র ৩ ঘন্টায় ১০ একর জমির ধান খেয়ে ফেলেছে । স্থানীরা এসব হাতি তাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ।
হাতির দলটি গোলাপ হোসেন, জালাল, মুহাম্মদ, হানিফ, হাকিম, জাবের আলী, জাহাঙ্গীর, সাজ্জাদ ও জয়নালেরসহ এ পর্যন্ত প্রায় ১০ একর জমির পাকা ধান খেয়ে শেষ করে ফেলেছে।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হাতি তাড়াতে গিয়ে ৪জন আহত হয়েছে। আহতদের নাম ও পরিচয় পাওয়া যায়নি।
করোনায় লকডাউন থাকায় জনবল সংকটে হাতি তাড়ানোর ব্যবস্থাও নিতে পারছে না স্থানীয় প্রশাসন।
এদিকে করোনায় লক ডাউনে বিপর্যস্থ রয়েছে সীমান্ত এলাকার মানুষ। টানা দেড় মাস লকডাউনে এ পর্যন্ত সরকারী কোন ত্রাণ না পৌছায় মানবিক বিপর্যয়ে মধ্যে রয়েছে এই এলাকার মানুষ। বিশেষ পাহাড়ী অদিবাসীদের মাঝে খাদ্য সংকট চরম আকার ধারন করেছে।
বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, ভারতীয় বন্যহাতি বাংলাদেশে প্রবেশ করার খবর পেয়েছি। করোনায় লোকবল সংকটে হাতি তাড়ানোর ব্যবস্থা না করা গেলেও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।
প্রসঙ্গত, প্রতিবছর এই সময়টাতেই ভারতীয় বন্যহাতির দল কাটা তারের বেড়া পাশ্বের গেট দিয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে লোকালয়ে প্রবেশ করে। এতে প্রতিনিয়তই পাকা ধানসহ ঘরবাড়ী জানমালের ক্ষতি সাধন করে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *