ঝালকাঠির রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ চক্রের দুই মহিলা সদস্য র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠি রাজাপুর থেকে শনিবার র‌্যাব-৮ বরিশাল এর একটি আভিযানিক দল অভিযান অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের দুইজনকে গ্রেফতার করেন গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মুন্নি আক্তার(১৮), পিতাঃ মোঃ বাদল মৃধা, স্বামীঃ জুম্মন মোল্লা, মোছাঃ পরি ভানু(৪০), স্বামীঃ মোঃ বাদল মৃধা, উভয় সাংঃ আকসর ক্লাব, থানাঃ রাজাপুর । ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর বাইপাস হতে গ্রেফতার করে। মুন্নি আক্তার(১৮) দীর্ঘদিন যাবৎ সাধারণ মানুষের নিকট থেকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ করে আসছিল। সে বিবাহিত হওয়া সত্বেও অবিবাহিত বলে বিভিন্ন স্থানের ব্যবসায়ীদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে অর্থ আত্নসাৎ করতো। গত ১৭ মে ২০২০ তারিখ মুন্নি আক্তার সাগরদী বাজারে মোঃ মাসুদ হোসেন(২৩) এর কনফেকশনারী দোকানে আসে এবং জানায় তারা খুবই গরীব ও অসহায় এবং তার মা খুব অসুস্থ হওয়ায় চিকিৎসা করানোর জন্য ৪০,০০০/- টাকা প্রয়োজন। তখন মোঃ মাসুদ হোসেন মুন্নির পরিবার সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদে বলে তার পিতা দুই বছর আগে মৃত্যু বরণ করে এবং তাদের পরিবারে উপর্জন করার মত কোন মাধ্যম নাই। কথোপকোথনের এক পর্যায়ে মুন্নি আক্তার(১৮) মোঃ মাসুদের এর মধ্যে মোবাইল নম্বর আদান-প্রদান হয় এবং নিয়মিত একে অপরের সাথে যোগাযোগ চালিয়ে যায়। কথাবার্তার এক পর্যায়ে মুন্নি আক্তার এর সাথে মোঃ মাসুদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে আসামীর মা মোছাঃ পরি ভানু(৪০) তার মেয়েকে বিয়ে করার প্রস্তাব দিলে মোঃ মাসুদ হোসেন(২৩) তার প্রস্তাবে রাজি হয়। তখন আসামী মা বিয়ের বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য অনুরোধ করে এবং কালক্ষেপন না করে দ্রত বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। গত ২৭ মে ২০২০ তারিখে মোবাইল ফোনে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা নিয়ে একাকি বিয়ে করার জন্য ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর থানাধীন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর মেইন গেইটের সামনে আসতে বলে। পরবর্তীতে মোঃ মাসুদ হোসেন সরল বিশ্বাসে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা নিয়ে উক্ত স্থানে যায়। তখন আসামীর মা মাসুদ হোসেনকে ফাঁকি দিয়ে ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা কৌশলে হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।
পরবর্তীতে র‌্যাব কর্তৃক আসামীদ্বয়কে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ করে নেয়ার বিষয়টি উপস্থিত লোকজনের সামনে স্বীকার করে। আটককৃত দুই প্রতারক এর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *