প্রকাশিত সংবাদের ব্যাখ্যা দিয়েছেন প্রফিট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মোঃ নুরুজ্জামান আহমেদ

লালমনিরহাট অফিস \ প্রকাশিত সংবাদের ব্যাখ্যা দিয়েছেন প্রফিট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মোঃ নুরুজ্জামান আহমেদ। তিনি বলেছেন, রংপুর সংবাদ পোর্টাল প্রকাশিত লালমনিরহাট প্রতারণার মাধ্যমে সাংবাদিক অনুদান আত্মসাৎ শিরোনামে বিভিন্ন কুৎসা ও বদনাম রটানো হচ্ছে । যা ইতিপূর্বেও বিভিন্ন অনলাইনে প্রকাশিত করেছে এটি আদৌ সত্য নয়,ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। একটি কুচক্রী মহল ও কতিপয় সাংবাদিক আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এ সকল প্রচারণা চালিয়ে আসছে বলে তিনি দাবী করেন। তিনি আরো বলেন, আমি একজন সাংবাদিক, দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি কালীগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছি। প্রকাশিত সংবাদের ব্যাখ্যায় উল্লেখ করেছেন আমি ২০১১ সাল হতে অদ্যাবদি পর্যন্ত বিভিন্ন পত্রিকা ও দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি পত্রিকায় সততা ও নিষ্ঠার সহিত সংস্থার কাজ করার পাশাপাশি বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার দায়িত্ব পালন করে আসছি। আমার সাংবাদিকতার পরিচয় পত্র, যাহার নং ২৩.২১.৫৮.১২৬.১৬০ এবং আমি বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০১১ও ২০১৬ এবং উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০১৪ সালে নির্বাচনী পর্যবেক্ষক হিসেবে কালীগঞ্জ উপজেলায় কাজ করেছি। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৫ সালে সাংবাদিক সহায়তা ভাতা ও অনুদান তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত বিজ্ঞপ্তির ফরম পূরণ পূর্বক নীতিমালার আলোকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন করি। এরই প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কর্তৃপক্ষ ৫০ হাজার টাকার একটি চেক আমার নামে বরাদ্দ প্রদান করেন। বরাদ্দকৃত চেকটি তৎকালীন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লালমনিহাট আমার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি তদন্ত পুর্বক যাচাই-বাছাই করে কিছু সাংবাদিকের উপস্থিতিতে আমার নিকট হস্তান্তর করেন । এতে কতিপয় সাংবাদিক ও কুচক্রী মহল ঈর্ষান্বিত ও হিংসাত্মক মনোভাবের কারণে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে ও বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে মিথ্যা প্রচারণা ছড়াচ্ছে। যা আমার জন্য সম্মানহানিকর ও ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপপ্রয়াস। তিনি উক্ত প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *