কুড়িগ্রামে বন্যার্তদের মাঝে  খাবার বিতরণ

রাজীবপুর(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি 

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অতিবৃষ্টিতে গত প্রায় দুই সপ্তাহ থেকে বন্যার পানিতে ভাসছে কুড়িগ্রামের ৯ টি উপজেলার কয়েক লাখ মানুষ।করোনাকালে বন্যা ও গত কয়েকমাস থেকে কর্মহীন হয়ে পড়া নিম্নআয়ের মানুষজন পড়েছে চরম অর্থ ও খাদ্যসংকটে। 
অসহায় এসব মানুষের মুখে একবেলা খাবার তুলে দিতে উদ্যোগ নিয়েছে কুড়িগ্রামের ‘মা আমিনা’ ফাউন্ডেশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সদর উপজেলার ভেলাকোপা বেড়িবাঁধ ও ধরলা ব্রিজের পূর্ব পাড়ের ৩ শতাধিক মানুষের মাঝে রান্না করা খিচুড়ি বিতরণ করছে সংগঠটির স্বেচ্ছাসেবীরা।ভেলাকোপা বেড়িবাঁধে কথা হয় দিনমজুর  কুলছুম বেগমের সাথে বলেন, ৭ দিন থেকে বৃষ্টি আর বন্যায় কাজকর্ম করতে পারেননি তিনি।  কোনরকম একবেলা খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছেন।স্বেচ্ছাসেবীদের দেয়া খিচুড়ি পেয়ে তার চোখে মুখে খুশির উদ্বেগ।          
‘মা আমিনা’ সেচ্ছাসেবক টিমের সমন্বয়ক রাশেদুজ্জামান শামীম বলেন,লড়ব সবাই গড়ব দেশ এই প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে সংগঠনটি যাত্রা শুরু হয়েছে।   বর্তমানে বৈশ্বিক করোনা মহামারীতে ভয়াবহ সময় অতিবাহিত করছে বিশ্ববাসী। এর মধ্যে নতুন করে যোগ হয়েছে দফায় দফায় বন্যার প্রাদুর্ভাব। দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে আমরা আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করছি অসহায় মানুষগুলোর পাশে এসে দাঁড়াতে। চেষ্টা করছি বন্যার্ত মানুষদের কাছে রান্না করা খাবার বিতরণের কাজটি অব্যাহত রাখতে। ভবিষ্যতেও দেশের যে কোন দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবে স্বেচ্ছাসেবী ‘মা আমিনা’ ফাউন্ডেশন এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।      

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *