কালকিনিতে ইউপি চেয়ারম্যান সুমনের পক্ষে- বিপক্ষে মানববন্ধন ও বিক্ষাভ সমাবেশ

কালকিনি (মাদারীপুর) সংবাদদাতাঃ

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মােস্তাফিজুর রহমান সুমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও মুক্তির দাবিতে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন করছে ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ। অন্যদিকে একই এলাকায় সুমনের ফাসির দাবিত বিক্ষাভ সমাবেশ করা হয়। গতকাল দুপুরে বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের খাশেরহাট- মালেরহাট সড়কের আউলিয়ার চর এ মানববন্ধন ও বিক্ষাভ সমাবেশ করা হয়।

জানা যায়, বাঁশগাড়ি এলাকায় খবির মৃধা হত্যা মামলা ও ইউপি সদস্য আক্তার সিকদারকে হত্যা চেষ্টা মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করায় বর্তমানে সে জেল হাজতে রয়েছে। তার মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন হয়। এ সময় এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করে। মানববন্ধনে তারা জানান, চেয়ারম্যানকে শুধু শুধু ডেকে নিয়ে হাজতে দিয়েছে। চেয়ারম্যান এলাকায় না থাকায় এলাকাবাসী নির্যাতিত হচ্ছে। আমরা সুমন চেয়ারম্যানের মুক্তি চাই। চেয়ারম্যান এলাকায় থাকলে আমাদের অসহায় অবস্থায় থাকতে হতাে না। নদী ভাঙ্গনের সময় সে অনক কিছু দিয়ে সহযােগীতা করছে। আর বাহিরে থাকলে এখনও আমাদের সহযােগীতা করতাে।
অন্যদিকে একই এলাকায় খবির মৃধা ও আক্তার সিকদারের পক্ষের মানুষ সুমনের ফাসির দাবীতে বিক্ষােভ সমাবেশ করছে।
বিক্ষােভ সমাবেশে ইউপি সদস্য আক্তার সিকাদারের বাবা মতি সিকদার বলেন, সুমন চেয়ারম্যানের নির্দেশ এলাকার ৫-৭ টা খুন হয়েছে। ১০-১২ জনের হাত-পা কাটছে। কবির মৃধার চাখ উঠাইছে। আমার ছেলে আক্তারকে হত্যা করতে চেয়েছে। সুমন চেয়ারম্যান খবির মৃধা, আল আমীন ও রাতুল হত্যা মামলার আসামী। আমারা প্রধানমন্ত্রীর কাছে খুনি চেয়ারম্যান সুমনের বিচার চাই।
মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ’সদর সার্কেল, মােহাম্মাদ বদরুল আলম মােল্লা জানান, আমরা জানি বাঁশগাড়ি এলাকায় সুমনের পক্ষের লােকজন মানববন্ধন করছ অপরদিকে অন্য পক্ষ সুমন চেয়ারম্যানের ফাসির দাবীতে বিক্ষােভ সমাবেশ করেছে। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে যে মামলা সেটা আদালতে রয়েছে । আদালতেই সিদ্ধান্ত নিবে তাকে মুক্তি দিবে না সাজা দিবে? তবে আমরা চেষ্টা করছি এলাকায় যাতে কােন প্রকার আইন-শৃঙ্খলা ভঙ্গ না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *