mail-google

শ্যামল কুমার বর্ম্মণ, চিলমারী (কুড়িগ্রাম) থেকেঃ

নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী শাজাহান খান এমপি বলেছেন, আগামী ১ বৎসরের মধ্যে চিলমারী নদী বন্দরকে একটি পুর্ণাঙ্গ নদী বন্দরে রূপ দেয়া হবে। তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার থানাহাট এ,ইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে চিলমারী নদী বন্দর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সুধি সমাবেশে প্রদান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, চিলমারী থেকে পায়রা সমুদ্র বন্দর পর্যন্ত নৌ-রুট চালু থাকবে। আগামী জুন মাসের মধ্যে নদী খননের কাজ সম্পন্ন করা হবে এবং একটি পুর্ণাঙ্গ নদী বন্দরের জন্য যা যা অবকাঠামো নির্মাণ করা দরকার তা করা হবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা কথা দিলে তিনি কথা রাখেন। গত ৭ সেপ্টেম্বর এই মাঠে তিনি কথা দিয়েছিলেন চিলমারী নদী বন্দরের, আজ তিনি কথা রাখলেন। আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় আসে তখন দেশের ও জনগণের উন্নয়ন হয়। উন্নয়নের জন্য আওয়ামীলীগ কাজ করে। ইসলামের নামে যারা জঙ্গি তৎপরতা চালাচ্ছে, বেহেস্তে যাওয়ার জন্য মানুষ হত্যা করছে, তারা বেহেস্তে নয়, জাহান্নামে যাবে।

চিলমারী উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সুধি সমাবেশে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙা এমপি, কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ, কে, এম মাঈদুল ইসলাম মুকুল, বিআইডাব্লিউটিএ‘র চেয়ারম্যান কমডোর এম. মোজাম্মেল হক, চিলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ সরকার, উলিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতি শিউলী ও রৌমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিনু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এর আগে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এমপি চিলমারীর রমনা ঘাটে ফলক উম্মোচনের মাধ্যমে চিলমারী নদী বন্দরের শুভ উদ্বোধন করেন এবং সেখানে একটি রাবার বৃক্ষের চারা রোপন করেন। য়

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।