খানসামা উপজেলায় আমের গাছে গাছে মুকুলের সমারোহ, ভালো ফলনের সম্ভাবনা

এস.এম.রকি,খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ প্রকৃতিতে বসন্ত আগমনের কয়েকদিন হলো। মাঘের শীত শেষে ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে উষ্ণতা। তাপমাত্রার সাথে সাথে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় আমের গাছে গাছে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মুকুলের সমারোহ। থোকা থোকা মুকুলের ভারে ঝুলে পড়েছে আম গাছের ডালপালা।

এবছর বড় ধরনের কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এবং আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আমের ভালো ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছে কৃষি বিভাগ ও আম চাষীরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে বাগান ও বসতবাড়ি সহ প্রায় ১০০ হেক্টর জমিতে আমের বাগান রয়েছে।

দেখা যায়, উপজেলার পাকেরহাট, পাঁচপীর ও মাদারপীর গ্রামের আম বাগান ও গাছে প্রচুর মুকুলের সমারোহ। অনেকেই বাসার ও বাগানের আমের মুকুল পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। কোথাও সাথী ফসল চাষ করা হচ্ছে। এতে কৃষকরা ভালোই লাভবান হচ্ছে এবং আম চাষে আগ্রহ বাড়তে শুরু করছে।

পাকেরহাট গ্রামের আম চাষী মমিনুল ইসলাম বলেন, আবহাওয়া ভালো থাকলে বিগত সময়ের চেয়ে ফলন ভালো হবে। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমের পরিচর্যা শুরু করছি আমরা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বাসুদেব রায় জানান, ‘গেল দুই সপ্তাহ আগে থেকে গাছে আমের মুকুল আসতে শুরু করেছে। এ সময় বিভিন্ন পোকামাকড় মুকুলের ক্ষতি করে। এ পোকা- মাকড় দমনে বালাইনাশক স্প্রে করলে তা আক্রমণ করতে পারে না। যদি আবহাওয়া অনুকূলে থাকে তাহলে এবছর আমের ফলন খুব ভালো হবে বলে আমরা আশা করছি’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.