mail.google
কামরুল ইসলাম হৃদয়,ব্যুরো প্রধান,চট্টগ্রাম:: প্রতিবছরের মতো এবারো নতুন টাকার নোট বাজারে ছেড়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে আঙ্গুলের ছাপের মাধ্যমে যে কোনো গ্রাহক এই টাকা সংগ্রহ করতে পারবেন।ঈদের আগের শেষ কর্মদিবস পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত লেনদেন চলাকালীন এই নোট সংগ্রহ করা যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব কাউন্টারসহ বাণিজ্যিক ব্যাংকের ২০টি শাখা হতে নতুন নোট বদলে নেওয়া যাবে।এবার প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকার সমপরিমাণ নতুন নোট বাজারে ছেড়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।প্রতিজনকে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকার বিনিময়ে ১০০টি ৫০ টাকা নোটের একটি বান্ডেল, ১০০টি ২০ টাকা নোটের একটি বান্ডেল, ১০০টি পাঁচ টাকার নোটের একটি বান্ডেল এবং ১০০টি দুই টাকা নোটের একটি বান্ডেল দেওয়া হবে।বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র শুভংকর সাহা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল, সদরঘাট, চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেট অফিস এবং ২০টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে এই নতুন নোট ছাড়া হবে।তিনি বলেন, ‘দুই ঈদে নতুন নোটের বেশ কদর রয়েছে। এ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই আমরা নতুন টাকার প্রস্তুতি নিয়েছি।’বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র বলেন, এবার ঈদ উপলক্ষে ৩০ হাজার কোটি টাকার বেশি নতুন নোট মজুদ রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ হাজার কোটি টাকা বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ছাড়া হবে।শুভঙ্কর সাহা জানান, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে আঙ্গুলের ছাপের মাধ্যমে এক ব্যক্তি একবার মাত্র নতুন টাকা সংগ্রহ করতে পারবেন। কেউ আট হাজার ৭০০ টাকার বেশি নতুন নোট সংগ্রহ করতে পারবেন না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।