মো: মানিক হোসেন চিরিরবন্দর প্রতিনিধি(দিনাজপুর)
দিনাজপুর চিরিরবন্দরের ইসবপুর ইউনিয়নে পুরান বিন্যাকুড়ি দারুস সালাম আলিম মাদ্রাসার কর্মচারী দ্বারা অধ্যক্ষ মো: আব্দুল মাজেদ লাঞ্চিত হওয়ায় মাদ্রাসার কর্মচারী সহ ৬ জনকে আসামী করে চিরিরবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন । যার মামলা নং ০৬ তাং ২১/০৫/১৬ । মামলা সূএে জানা যায় মাদ্রাসার নৈশ প্রহরী মো: ইয়াকুব আলী সঠিক ভাবে মাদ্রাসা না আসায় এবং বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডে সহিত জড়িত থাকায় এমনকি ১৬ দিন তার কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার ফলে মাদ্রাসা কমিটি ১৬ দিনের বেতন কর্তন করায় গত ১৯ মে দুপুর ৩ টায় অধ্যক্ষ বিন্যাকুড়ি বাজার হয়ে পায়ে হেটে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে গ্যানার মোড় পৌচ্ছা মাএ ওই মাদ্রসার কর্মরত নৈশ প্রহরী আসামী মো: ইয়াকুব আলী (২৬),ইব্রাহীম আলী(৪৫), ফয়জার আলী(৩৮), মোয়াজ্জেম হোসেন(৪২), আমীর আলী(৪৫), সহ অজ্ঞাত নামা আরো ৪/৫ জন আসামী গন পূর্ব পরিকল্পিত বে-আইনী ভাবে দেশীয় অস্ক্রে সজ্জিত হইয়া অধ্যক্ষকে মারপিট করে ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় বলে মামলায় উল্লেখ রয়েছে। এ ঘটনায় নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক এলাকাবাসীর সাথে কথা হলে তারা জানায় সে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধরনের সরকার বিরোধী কাজে লিপ্ত থাকে । তবে মাদ্রসার নৈশ প্রহরী ইয়াকুব আলীর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তাকে এলাকায় পাওয়া যায়নি।

এদিকে মাদ্রসার প্রতিষ্ঠাতার সদ্যস্য জিকরুল হক এর সাথে কথা বলে, জানা যায় ইতিপূর্বে নৈশ প্রহরী তার দায়িত্ব পালনে গাফেলতির অনেক অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে মাদ্রসার সভাপতি মো:শহিদুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং এ বিষয়ে মাদ্রসার মিটিং হয়েছে ।

এ ব্যাপারে ইউপি, চেয়ারম্যান মো: আবু হায়দার লিটন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান ,আমি ঘটনার সময় এলাকায় ছিলাম না। তবে বিষয়টি শুনেছি এবং জেনেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পড়ুন