mail.google

এইচ.এম ইমরান, ঝিনাইদহ থেকে :
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের পিরোজপুর কড়াইতলা নামক স্থানে পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ অজ্ঞাত এক ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ সময় পুলিশের দুই কনস্টেবল রতন ও আল-আমিন আহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে ১টি শাটার গান, ৫টি বোমা, গাছ কাটার করাত, ৪টি রামদা, ১ রাউন্ড গুলি ও রশি উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। কালীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার এস,আই ইমরান আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রাতে পুলিশ টহল ডিউটি করছিল। টহল গাড়িটি উক্ত স্থানে পৌঁছালে রাস্তার ওপর গাছ ফেলানো দেখতে পায়। এসময় পুলিশ সেখানে দাঁড়ালে ১০-১২ জনের ডাকাতদল পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ২টি বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ১৭ রাউন্ড গুলি চালালে উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনাস্থলে একজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। এ সময় বাকি ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পুলিশ অজ্ঞাত ওই ডাকাতের লাশ উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহফুজুল আলম সোহাগ তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, উভপক্ষের বন্দুকযুদ্ধে অজ্ঞাত এক ডাকাত নিহত হয়। তার নাম ও পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। এসময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি বোমা ও রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।