ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি॥
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আশরাফ ইসলাম আলীর বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে শারীরিক নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে।এ ঘটনায় সোমবার রাতে পুলিশ ওই মেম্বারকে আটক করে।
পুলিশ জানায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের শিবগঞ্জ এলাকার মিন্টুর স্ত্রী নেহার সাথে ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আশরাফ আলীর ভাতিজা নুর ইসলামের পরকীয়া সম্পর্ক চলে আসছিল । নেহা কয়েকদিন আগে আগের স্বামী মিন্টুকে তালাক দেয় ।এরপর ইউপি সদস্য আশরাফের ভাতিজা নুর ইসলামকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়।
সোমবার দুপুরে নেহার বিয়ের দাবিতে নুর ইসলামের বাড়িতে গিয়ে উঠে।এতে ইউপি সদস্য আশরাফ আলী ও তার পরিবারের লোকজন ওই গৃহবধূকে বেধরক মারপিট করে । পরে গৃহবধু নেহারকে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে এসে একটি রুমে আটকে রাখে । রাত সাড়ে ৯টায় ঠাকুরগাঁও থানা পুলিশ খবর পেয়ে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতলে ভর্তি করে দেয় । এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ইউপি সদস্য আশরাফকে আটক করা হয়।
ঠাকুরগাঁও থানার উপ পরিদর্শক সিরাজুদ্দৌলা গৃহবধুকে নির্যাতনের কথা স্বীকার করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধুকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।