SAMSUNG CAMERA PICTURES

রাণীশংকৈল প্রতিনিধি

ঠাকুরগাওয়ের হরিপুর রাণীশংকৈল উপজেলার কোচল সীমান্ত ফাঁড়ি ও চাপসার সীমান্ত ফাঁড়ির মধ্যবর্তী স্থান গবিন্দপুর গ্রাম এলাকায় পাথরকালি মেলা উপলক্ষ্যে দুই বাংলার মানুষের মিলন মেলা শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে । ভারতীয় মাকরহাট গ্রাম এলাকার প্রাণডাঙ্গী বিএসএফ ক্যাম্প ও বাংলাদেশের কোচল সীমান্ত ফাঁড়ি ও চাপসার সীমান্ত ফাঁড়ির মধ্যবর্তী স্থানে এ মিলন মেলা ঘটে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য। দুই দেশের ভৌগলিক এলাকা মধ্যখানে কাঁটা তারের বেড়া। দুই পারে মানুষের ঢল। কাঁটাতারের দুই পারে কারো কারো মুখে হাসি আবার কারো মুখে কান্নার রোল। আবার কারো চোখে প্রিয়জনকে খোজার ছাপ। ঘুরছে এদিক থেকে সেদিকে। কেউবা প্রিয়জনকে কিছু উপহার দেয়ার জন্য কাঁটা তারের উপর দিয়ে চালিয়ে সীমানা পার করছে। হয়তবা অনেকে নিজে পাচ্ছে আবার কেউ বা অন্যের জিনিস ভিড়ের মাঝে নিয়ে পালাচ্ছে। আবার কেউ ছুড়ে দেয়া জিনিসে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে অসুস্থ হচ্ছে। বীরগঞ্জ থেকে আসা রাসেল বলেন আমি আমার মামা খালাদের সাথে দেখা করার জন্য বাড়ির লোকজনকে নিয়ে এসেছি। দেখা হয়েছে খুব ভাল লাগলো। রাজশাহীর তানোর থেকে আসা তিথি বালা বলেন, আমার বোনের সাথে দেখা করলাম প্রায় ৫ বছর পর দেখা হয়েছে। কথা বললাম ওদের সবার সাথে। দিনভর চলে দুই দেশের মানুষের দেখা কথা বলা জিনিস আদান প্রদান আরো কতো কি। এদিনটি পেয়ে সবাই যেন এক অনাবিল আনন্দে মেতে উঠে পাস পোর্ট ছাড়াই আত্মীয় স্বজনদের সাথে দেখা করতে পেরে। এ মিলন মেলাকে কেন্দ্র করে এখানে উদযাপন করা হয় পাথরকালির মেলা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।