mail.google.com

 

বিএনপি পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিয়ে প্রার্থী মনোনয়ন দিয়েছে জানিয়ে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেছেন, এখন নির্বাচন কিভাবে নিরপেক্ষ হবে তা প্রমাণ করার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের (ইসি)। শনিবার (০৫ নভেম্বর) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দল এর উদ্যোগে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।
তিনি আরো বলেন, পৌর নির্বাচন যদি সুষ্ঠু না হয় তাহলে ৫ জানুয়ারির অবৈধ নির্বাচনের পরিণতি সরকারকে ভোগ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে পৌর নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে হলে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরী করতে হবে। পাকিস্তানের পাঞ্চাবের সংসদে বাংলাদেশকে নিয়ে যে মিথ্যাচার করা হয়েছে আমি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। তিনি গণতন্ত্রের মানসপুত্র শহীদ হোসেন সোহরাওয়ার্দীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, আজ তার ৫২তম মৃত্যুবার্ষিকী। তাকে শ্রদ্ধার মধ্য দিয়ে বলতে চাই তিনি যেমন গণতন্ত্রের জন্য নিজের জীবনকে উৎসর্গ করেছিলেন আমাদেরকেও সেভাবে দেশপ্রেমিক হয়ে গণতন্ত্রের পথে হাঁটতে হবে। তিনি যেকোন মূল্যে আগামী ৩০ ডিসেম্বর পৌর নির্বাচনে অবৈধ সরকার কেন্দ্র দখল করতে না পারে সেজন্য সকল জাতীয়তাবাদী শক্তির ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির বেপারীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের প্রধান উপদেষ্টা লেঃ জেনাঃ (অবঃ) মাহবুবুর রহমান। প্রধান আলোচক ছিলেন জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, এনডিপির চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এড. আহমেদ আজম খান, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, কৃষক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাজাহান মিয়া সম্রাট, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাতীয়তাবাদী পেশাজীবী দলের সভাপতি আরিফুল ইসলাম জিয়া, সাংবিধানিক অধিকার ফোরামের সভাপতি বাবু সুরঞ্জন ঘোষ, ফারুক হোসেন রুদ্র, সাইফুল ইসলাম সহ প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।