আব্দুল হাকিম রাজ,মৌলভীবাজারঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৌলভীবাজারের একই পরিবারের তিনজসহ আটজন নিহত হয়েছেন। ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো চারজন। একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত আটজনের বাড়িই একই গ্রামে। এ খবরে পুরো এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।শুক্রবার সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মনবাড়িয়ায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, নিহতদের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার রুপসপুর গ্রামে। তারা হলেন- হাবিবুর রহমান (৫৫), তার দুই ছেলে আবু সুফিয়ান (২৫) ও মো. কামরান (২৩) এবং তাদের আত্মীয় মুর্শেদ রহমান (৫০), আলী হোসেন (৩৫), উপজেলার মুন্সিবাজার ইউপি আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হান্নান (৬৫), মুক্তার মিয়া ও একটি শিশু কন্যা।
নিহতদের গ্রামের প্রতিবেশী আফরোজ আলী তাদের পরিচয় নিশ্চিত করে বলেন, আবু সুফিয়ানের বিয়ে উপলক্ষে কমলগঞ্জ থেকে তারা সবাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে তারা দুর্ঘটনার স্বীকার হন।কমলগঞ্জ থানা ও খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ সূত্রে জানা য়ায়, সকাল ১০টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিজয়নগর উপজেলার শশই এলাকায় সিলেটগামী এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসেরর সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসের আট আরোহী মারা যান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।