ষ্টাফ রিপোর্টারঃ
ভুরুঙ্গামারীতে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে ৪ মাসের গর্ভবতী। ঘটনা প্রকাশ হওয়ায় ধর্ষক পলাতক
ঘটনায় জানাগেছে,উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের দক্ষিণ বাঁশজানী গ্রামের তমেজউদ্দিনের কন্যা দক্ষিণ বাঁশজানী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী মোছাঃ নীলুফা খাতুন(১২)কে একই গ্রামের এবং ঐ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও পাথরডুবি ইউপি সদস্য মোঃ আজিবর রহমান (৪৫) ৪ মাস পুর্বে সন্ধ্যার সময় বাড়ি যাওয়ার সময় একা পেয়ে মুখে ওড়না দিয়ে বেঁেধ বাড়িতে নিয়ে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে । ধর্ষণ শেষে ঘটনার কথা কাউকে বললে খুন করার হুমকি দিলে নীলুফা প্রানের ভয়ে ঘটনা প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকে। এদিকে কিছুদিন পর নীলুফার শারিরীক পরিবর্তনে তার আত্মীয় স্বজনেরা বিষয়টি আচ করতে পেয়ে নীলুফাকে জিজ্ঞাসাদে জানতে পারে ৫ মাস পুর্বে বিদ্যালয়ের সভাপতি এবং ইউপি সদস্য আজিবর রহমান কর্তৃক ধষণের কথা। এদিকে নীলুফা ৪ মাসের গর্ভবতী পরীক্ষা করে জানার পর এলাকাবাসী আজিবর রহমানকে চাপ দিলে সে গর্ভ নষ্ট করার জন্য টাকা নিয়ে ক্লিনিকে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে নীলুফাকে গর্ভপাত করাতে ব্যর্থ হলে উক্ত নরপশু আজিবর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এদিকে গত বৃহস্পতিবার মামলার তদন্তকারী এ,এস,আই জালাল জানান নীলুফার বড়ভাই জহুরুল হক বাদী হয়ে আজিবর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ০১ তারিখ-২.৯.২০১৬ ।
পুলিশ নীলুফার বয়স,গর্ভ ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। এবং আসামী গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।