ভূরুঙ্গামারীতে কন্যা শিশুকে আছাড় দিয়ে হত্যা ,ঘাতক মাকে আটক করেছে পুলিশ

ভুরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে মা কর্তৃক কন্যা শিশুকে ঘরের দেয়ালে আছাড় দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শিশু কন্যাটির বয়স ৪০ দিন বলে তার আত্মীয় স্বজনরা জানান। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের সাধুর মোড় ব্রহ্ম¥তর গ্রামে। জানাগেছে উপজেলার কচাকাটা থানার বলদিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ বলদিয়া (ইসলামানাদ) গ্রামের মোঃ আব্দুল লতিফ মাষ্টারের কন্যা মোছাঃ জুই খাতুনের সাথে একই ইউনিয়নের কেদার ব্রহ্মতর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের পুত্র সুমন মিয়ার সাথে প্রায় ২ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর জুই খাতুনের মানসিক রোগ দেখা দেয়। তারপরেও তাদের সংসার জীবন চলতে থাকে। প্রায় ৪০দিন পুর্বে জুই খাতুন একটি কন্যা সন্তান প্রসব করে। সন্তানটির নাম উষা খাতুন। জুই শ্বশুড় বাড়িতে অবস্থানের পর ঘটনার দিন বুধবার(২ মার্চ) তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যায়। বাবার বাড়িতে রাত সাড়ে ৮ টার সময় ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়ালে আছাড় দিলে শিশুটির চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন দরজা খোলার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে ঘাতক মা ও শিশুটির লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

জুই খাতুনের স্বামী ও শিশুটির বাবা স্বপন মিয়া বলেন,আমার স্ত্রী জুই একজন মানসিক ভারসাম্যহীণ রোগী।। সে মাঝে মধ্েযই পাগলের মতো আচরন করত। তার চিকিৎসাও চলছে। কিন্তুু বুধবার সন্ধ্যায় হঠাৎ করেই ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়ালে আছাড় দিয়ে শিশুটিকে মেরে ফেলে।

এ বিষয়ে কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,জিজ্ঞাবাদের বাদের জন্য শিশুটির মা জুইকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। শিশুটির লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।যেহেতু শিশুটির মা মানসিক ভারসাম্যহীণ বলে আমরা এলাকাবাসীর নিকট জানতে পেরেছি। পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোন মামলা দায়ের করা হয়নি। মামলা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.