হারুন উর রশিদ সোহেল রংপুর॥
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ওপর স্বজনদের হামলার প্রতিবাদ ওচিকিৎসক পরিষদের কমিটি গঠনের দাবিতে লাগাতার কর্মবিরতি শুরু করেছে শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। এদিকে হঠাৎ শুরু হওয়া কর্মবিরতিতে চিকিৎসাসেবা ব্যহত হওয়ায় শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের কাজে ফেরানোর চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ।
ইন্টার্ন চিকিৎসক মাহফুজুল হক রাকিব বলেন, “ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের কমিটি গঠন ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তারসহ বিভিন্ন দাবিতে আমরা ১৮০ জন চিকিৎসক গতকাল বুধবার জরুরি সভা করে লাগাতার কর্মবিরতির সিদ্ধান্ত নিয়েছি।আমাদেরদাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত কর্মবিরতি অব্যহত থাকবে বলে জানান তিনি।
এদিকে মঙ্গলবার রাতে রংপুর মহানগরীর গণেশপুর বকুলতলা এলাকার ফার্নিচার ব্যবসায়ী মনির হোসেন মন্টু (৪০) ঢাকা থেকে রংপুর আসার পথে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়েন। এতে মন্টু গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে একটি বে-সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে বুধবার ভোরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে মেডিসিন বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় মন্টু মারা গেছেন বলে অভিযোগ তুলে নিহত মন্টুর আতœীয়-স্বজনদের সঙ্গে হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসকদের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর আগে চিকিৎসকদের উপর হামলা ও হাসপাতাল ভাংচুরের অভিযোগ এনে রোগীর স্বজনদের গ্রেপ্তারের দাবিতে হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, চিকিৎসা অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগটি সম্পুর্ণ ভিত্তিহীন। আলোচনা করে শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের কাজে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।