রাজীবপুর (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা

কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলা আ’লীগের বহিস্কৃত ৭ নেতাকর্মীর উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকাল সারে ৪টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা শহর প্রদক্ষিন শেষে সুপার মার্কেটের সম্মুখে প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সমাবেশে বহিস্ককার প্রত্যাহারসহ বর্তমান উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদকের ব্যাপক সমালোচনা করে বক্তরা।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অধ্যাপক সবুর ফারুকী, আব্দুস সামাদ বিএ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন হিরো প্রমুখ। বক্তরা অভিযোগ তোলেন, বর্তমান উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান শফিউল আলম ও সভাপতি আব্দুল হাই সরকার দলকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। তাদের দু’জনের কারনেই উপজেলা সদর ও মোহনগঞ্জ ইউনিয়ন নির্বাচনে আ’লীগের প্রার্থী হেরে গেছে। সরকারি বিভিন্ন অফিস জিম্মি করে লুটপাট করছে। এতে করে বর্তমান সরকারের দিক থেকে রাজীবপুরের সাধারণ মানুষ মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। এ অবস্থা চলতেদির্ঘদিন চলতে থাকলে একদিন আ’লীগে করার মতো ত্রকটি লোকও পাওয়া যাবে না ত্রই উপজেলায়।

উল্লেখ্য যে,সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলের প্রার্থীর পক্ষে কাজ না করার অভিযোগে গত ২৭ এপ্রিল উপজেলা আ’লীগ গুরুত্বপূর্ন ৭ নেতাকর্মীকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে উপজেলা আ’লীগ। বহিস্কার কার্যকর করার জন্য জেলা আ’লীগের কাছে সুপারিশও পাঠানো হয়। আ’লীগের যে ৭জনকে বহিস্কার করা হয় তারা হলেন, উপজেলা আ’লীগের বর্তমান সহসভাপতি অধ্যাপক আব্দুল হাই ও হারুন অর রশীদ ওরফে আলম মিয়া, সাবেক দু’বারের উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আব্দুস সামাদ বিএ, সাবেক ৩ বারের সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন হিরো, বর্তমান সদর ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি সিরাজদ্দৌলা, উপজেলা আ’লীগের সদস্য আব্দুস সামাদ ও মশিউর রহমান রতন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।