শফিউল আলম শফি,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ঃ ১৪.০৭.১৬
রৌমারী উপজেলায় ইজলামারী সীমান্তে বিএসএফ এর ছোড়া পাথরের আঘাতে বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ী আখিদুল ইসলাম (৩০) নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তার লাশ এখনো পাওয়া যায়নি।
স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের লোকজন জানান, বুধবার সন্ধা ৭টার সময় উপজেলার ইজলামারী সীমান্তের ১০৬৬ আর্ন্তজাতিক পিলারের নিকট ৩ জন গরু ব্যবসায়ী গরু আনতে যায়। এসময় তারা গরু নিয়ে ইজলামারী সীমান্তের কালুরঘাট ব্রীজের নীচ দিয়ে ফিরে আসার সময় ভারতের মানইকার চর থানার শাহপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে ব্রীজের উপর থেকে বড় বড় পাথর ছুড়ে মারে। এতে আখিদুল ইসলাম পাথরের আঘাতে নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।
তবে আখিদুল ইসলামের মা আছিয়া খাতুন জানান, আমার ছেলে ভারতে আমার মেয়ের বাড়ীতে বেড়াতে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে কালুরঘাট ব্রীজের নীচে বিএসএফ পাথর ছুড়ে মারে। এতে তার মৃত্যু হলে লাশ নদীতে পড়ে গেছে বলে জানতে পেরেছি।
রাশেদুল ইসলাম পুর্ব ইজলামারী গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে রৌমারী উপজেলার ইজলামারী ক্যাম্পোর কোম্পানী কোমান্ডার সুবেদার রফিকুল ইসলাম রফিক বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। খোঁজ নেয়া হচ্ছে।
রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহানী জানান, আখিদুল নামের এক বাংলাদেশীর নিহত হওয়ার বিষয়টি আমি নিশ্চিত নই। সে ভারতের অভ্যন্তরে অথবা বাংলাদেশে পালিয়েও থাকতে পারে। তবে লাশ পাওয়া গেলে নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।