ঝালকাঠিতে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে (৯) শ্লীলতাহানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক মো. নূরুল আমিনকে (৩৫) আটক করেছে পুলিশ। আটক হওয়া ওই ব্যক্তি ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়ার ইউনিয়নের নগপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। একই বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে পুলিশে সোর্পদ করে স্থানীয়রা। স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই শিক্ষক ছাত্রীকে বিভিন্ন কুপ্রস্তাবসহ শরীরে হাত দিত। এ বিষয়টি জানতে পেরে মঙ্গলবার সকালে স্থানীয়রা তাকে বিদ্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে দুপুরে পুলিশ গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। শিশুর বাবা জানান, নূরুল আমিন গত কয়েক দিন ধরে তার মেয়েকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে বলে মায়ের কাছে জানায়। পরে তার সহপাঠিদের কাছ থেকে খোঁজ নিয়ে একই অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ দেবেন। তবে অভিযুক্ত শিক্ষক নূরুল আমিন বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি জানান তাকে ফাঁসানোর জন্য  উদ্দেশ্যমূলকভাবে এ ঘটনা সাজানো হয়েছে। ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহে আলম বলেন,  স্থানীয়ভাবে জানতে পেরে ওই শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।