কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলায় গ্রীস্মকালীন আন্ত স্কুল মাদ্রাসা জাতীয় ক্রীড়া প্রতিযোগীতায় বিজয়ী দলের খেলোয়ারদের মারপিঠ করে ৬জনকে হাসপাতালে পাঠিয়েছে পরাজিত দলের খেলোয়াররা বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানান,গতকাল বিকেল ৪টার সময় নেহাল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সোনাহাট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ও সদরের নেহাল উদ্দিন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় দুটি অংশ নেয় । খেলায় সদরের নেহাল উদ্দিন বুিলকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মেয়েরা হেরে যায়। এতে নেহাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা ক্ষিপ্ত হয়ে সোনাহাট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের উপর চড়াও হয় এবং ২০-২৫জনকে মারধর করে । এতে ৬জনের অবস্থা গুরুতর হলে তাদের ভুরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। সোনাহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমান ভুট্রো মিয়া জানান,আমার বিদ্যালয়ের মেয়েরা ভাল খেলে বিজয়ী হয়েছে। কিন্তু বিনা কারনে নেহাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নিজস্ব মাঠ বলে তারা আমাদের বাচ্চাদের মারধর করেছে। ৬জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। ঘটনাটি আমি লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও শিক্ষা অফিসারকে জানিয়েছি। ভুরুঙ্গামারী থানা ইনচার্জ বলেন, ঘটনা শুনেছি। তবে লিখিত অভিযোগ পাইনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।