মোহাম্মদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর(দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

প্রতারনার ফাঁদে ফেলে দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে জাহিনুর রহমান (৩৭) নামের এক স্কুল শিক্ষক গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করায় স্ত্রী স্বীকৃতির দাবিতে ওই স্কুল শিক্ষকের বাড়ীতে অনশন শুরু করেছে। জানা গেছে, উপজেলার বাঙ্গাবাড়ী গ্রামের আফাজ উদ্দীনের পুত্র ও হরানন্দপুর হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক জাহিনুর দীর্ঘাাদন ধরে বীরগঞ্জ উপজেলার ভোগনগর গ্রামের মৃত ওয়াহেদ আলীর কন্যা পারভীন বেগমের (৩১) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায় গত বছরের ১লা মে ২ লক্ষ টাকা দেনমোহরে তাকে বিয়ে করে। বিয়ের পর হতে পারভীন তাকে তার (স্বামী) বাড়ীতে নিয়ে যাওয়ার জন্য চাপ দিলে জাহিনুর তার বাড়ীতে থাকার ঘরের সংকট দেখিয়ে নানা রকম টালবাহানা করে। পরে কৌশলে সে টিন কেনার কথা বলে পারভীনের কাছ থেকে ৩০ হাজার আদায় করে। টাকা গ্রহনের পর হতে সে তার স্ত্রীর সাথে সম্পুন রুপে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে। উপায়ন্তর না পেয়ে গত ১ জুন স্বামীর বাড়ীতে হাজির হয়ে অনশন শুরু করে। অবস্থা বেগতিক দেখে প্রতারক জাহিনুর বাড়ী হতে পালিয়ে যায়। তার অনুপস্থিতিতে জাহিনুরের প্রথম স্ত্রীসহ বাড়ীর লোকজন তাকে বাড়ী হতে বিতাড়িত করে। পরে সন্ধানে সে তার স্বামীর স্কুল খুজে বের করে স্কুলে হাজির হয়েও তাকে না পেয়ে প্রধান শিক্ষক ও সভাপতিকে বিষয়টি অবগত করে ও ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।