সরকারি কর্মচারিদের বেতন ভাতা দ্বিগুণ করার দাবি : মো. আবু সায়েম

মারুফ সরকার ,ঢাকা :
বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী দাবি বাস্তবায়ন জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ ১৬-২০ গ্রেড সরকারি কর্মচারী সমিতি, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. আবু সায়েম তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, ২০২২-২৩ অর্থ বছরে জাতীয় বাজেটে সরকারি কর্মচারিদের বেতন ভাতা দ্বিগুণসহ সর্বনিম্ব মূল বেতন ২৫ হাজার টাকা দাবি জানাছি। গত শনিবার রাজধানীর সেগুন বাগিচাস্থ স্বাধীনতা হলে বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী দাবী বাস্তবায়ন জাতীয় কমিটি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, ২০১৫ সালে জাতীয় বেতন স্কেলে ৬ সদস্য বিশিষ্ট পরিবারের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বেতন কাঠামো প্রনয়ণ করা হয়েছে। সেই বেতন স্কেলে যুগ-যুগ থেকে পেয়ে আসা টাইম স্কেলের নামে ৩বা ততোধিকবার বেতন বৃদ্ধির সুবিধা কর্তন করে সারা চাকুরী জীবনে ২বার বেতন বৃদ্ধির নিয়ম চালু করা হয়েছে। কর্মচারীদের প্রথা অনুযায়ী প্রাপ্য ২টি ইনক্রিমেন্ট ও সিলেকশন গ্রেড বাতিল করা হয়েছে। এতোদিনের প্রাপ্য সুবিধাদি কর্তন করে আমাদের আহার কের্ডে নিয়ে লোক দেখানো বেতন দ্বিগুণের বার্তা প্রচার করে কৌশলে ব্যবসায়ীদের স্বার্থে বাজার দরের উপর নেতিবাচক প্রভাব তৈরী করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, এই বেতন স্কেল বাস্তবায়নের পরে সর্বস্তরে বিরাজমান অসন্তোষের কারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পে-স্কেলের যাবতীয় বৈষম্য নিরসনে মাননীয় অর্থ মন্ত্রীকে আহবায়ক করে ১টি কমিটি গঠন করেছিলেন, সেই কমিটির ঘুম ভেঙ্গেছে কিনা তা আমরা আজও জানি না।
আবু সায়েম বলেন, এই ক’বছরে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য অনেক আগেই আমাদের নাগালের বাইরে চলে গেছে। এই বেতনে আমরা না পারছি পরিবারের ভরণ-পোষণ চালাতে, না পারছি বৃদ্ধ পিতা-মাতার চিকিৎসা খরচ চালাতে, না পারছি সন্তানের শিক্ষা খরচ চালাতে। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের লক্ষ্যে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের বৃহৎ ০৪(চার) টি সংগঠন নিয়ে আমরা এই দাবি জানাছি।
সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক মো. আকতার হোসেন এর সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুল হাই মোল্যা, লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সদস্য সচিব মো. আবু সায়েম, বিভিন্ন পর্যায়ের বৈষম্য ও অসংগতির চিত্র উপস্থাপনসহ সাংবাদিকগণের বিভিন্নপ্রশ্নের জবাব দেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক মো. হেদায়েত হোসেন।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধান উপদেষ্টা মো. লুৎফর রহমান খান, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ আলী, আবু সাঈদ ভূঁইয়া। যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আব্দুর রহিম হাওলাদার রানা, শাহীনুরআল আমিন, মো. মহসিন ভূইয়া ও মো. ফরিদুর রহমান। যুগ্ম সদস্য সচিব মো. বাহার উদ্দিন, মো. ফরিদুর রহমান, মো. খলিলুর রহমান, কবির আহাম্মেদ মজুমদার, মো. হেলাল উদ্দিন, মো. আব্দুল হালিম মিয়া, শেখ আব্দুস সালাম সুজন, মো. জালাল উদ্দিন, মো. ফেরদৌস ওয়াহিদ, মো. ফোরকান হোসেন মেহেদী, মো. আব্দুল মোতালেব, রওশন আরা রুবি, জাহানারা পারভীন, দিলরুবা শিরিন, মো. মাসুদ রানাসহ জাতীয় ৪টি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.