আমেরিকায় সেটল্ড হতে মরিয়া পূজা চেরি

মারুফ সরকার , বিনোদন প্রতিবেদক : মধ্যবিত্ত বাংলাদেশীদের কথিত সোনার হরিণ মার্কিন গ্রীন কার্ড পাওয়ার লোভে লম্বা একটা সময় ধরে দেশছাড়া শাকিব খান। তিনি বর্তমান সময়ে দেশীয় চলচ্চিত্রের একমাত্র সুপারস্টার হয়েও আমেরিকায় স্থায়ী হওয়ার আশায় গেলো বছরের শেষ দিকে আমেরিকা গিয়ে গ্রীন কার্ডের জন্যে আবেদন করেছেন। সেই গ্রীন কার্ড নামক সোনার হরিণ হাতে পাওয়ার জন্যেই কাজ কর্ম বাদ দিয়ে গেলো প্রায় ছয় মাস ধরেই মার্কিন মুল্লুকে পড়ে আছেন শাকিব খান। দীর্ঘ প্রবাস জীবনের বেকারত্ব কাটাতে যদিও তিনি কয়দিন আগে ওখানে নিজের প্রযোজনায় ‘রাজকুমার’ নামের একটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন। ছবির নায়িকা তথাকথিত মার্কিন মঞ্চ ও টেলিভিশন অভিনেত্রী কোর্টনি কফি। এই কফির অবশ্য উল্লেখ করার মতো তেমন কোন বড় পরিচয় নেই।

আমেরিকায় অবস্থানরত একাধিক প্রবাসী বাংলাদেশীর সূত্রে জানা গেছে, গেলো বছরের শেষদিকে আমেরিকায় যাওয়ার পর প্রথম কয়েক মাস বাংলাদেশী কমিউনিটির বিভিন্ন বাসায় গিয়ে ভোর রাত পর্যন্ত পার্টি করাই ছিল শাকিবের প্রধান এবং একমাত্র কাজ। সেখানকার একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, অপু – বুবলী কেলেঙ্কারির পর শাকিব খান আমেরিকা প্রবাসী এক সুন্দরী বাংলাদেশী নারীর সঙ্গে সম্পর্কে মজেন। শোনা যাচ্ছে, ওই নারীর কারণেই নাকি শাকিব খান গ্রীন কার্ডের জন্যে আবেদন করতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ, আগে পরে তার ওখানে স্থিতু হওয়ার পরিকল্পনা নাকি রয়েছে। তবে হালের তাজা খবর হলো অপু – বুবলী আর ওই আমেরিকা প্রবাসী সুন্দরীর পর বাংলাদেশী চলচ্চিত্রের ইচড়েপাকা খ্যাত নায়িকা পূজা চেরির সঙ্গে নাকি শাকিব খানের এখন চূড়ান্ত দহরম – মহরম চলছে।

গুঞ্জন চলছে – দেশসেরা চিত্রনায়ক শাকিব খানের পরামর্শেই নাকি এখন পূজা চেরি তার ক্যারিয়ার পরিচালনা করছেন। এর আগে তিনি শাকিবের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেন সরকারি অনুদানের ‘গলুই’ নামের একটি ছবিতে। গেলো বছর আমেরিকায় যাওয়ার আগে শাকিব খান এই ছবির শুটিং শেষ করে যান। কিন্তু পূজা চেরি ততদিনে তাকে মন দিয়ে অসম প্রেম শুরু করেন। জানা যায়, ছবির পরিচালক এস এ হক অলিকের হোম টাউন জামালপুরে শুটিং করতে গিয়েই নাকি শাকিব – পূজার প্রেম রোম্যান্সের সূত্রপাত। আউটডোর শুটিং ইউনিটের সবার চোখে পড়ে যায় এই নতুন প্রেমিক জুটির মাখামাখি। দীর্ঘদিন একসঙ্গে শুটিংয়ের সুবাদে তারা নাকি একান্তে একসঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ পেয়েছিলেন। তাতেই তৈরি হয় তাদের সখ্যতা। এই জুটিকে নিয়ে নতুন খবর হলো – বাবার বয়সী নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে অসম প্রেমের টানে নাকি পূজা চেরি যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ইতিমধ্যে ঢাকাস্থ আমেরিকান এম্বেসিতে তিনি ভিসা আবেদনও করেছেন। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এটা নিয়ে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে।

যাই হোক, শোনা যাচ্ছে – শাকিব খানের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও আশ্বাসে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেমিক নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে দ্বিতীয় ছবির শুটিং করার প্রস্তুতিও নাকি সম্পন্ন করেছেন পূজা চেরি। শোনা যাচ্ছে, আমেরিকা প্রবাসী একজন চলচ্চিত্র প্রযোজক পূজা চেরিকে ছবি নির্মাণের জন্যে গেলো তিন বছর ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছেন। গুঞ্জন উঠেছে – শাকিবের সঙ্গে সময় কাটানো তথা প্রেম রোম্যান্স করার জন্যেই ওই প্রযোজকের সঙ্গে সুযোগ বুঝেই ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখছেন পূজা। এমনকী তার পরামর্শেই আমেরিকা যাওয়ার সকল ফর্মালিটি সম্পন্ন করছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

এদিকে দেশীয় চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট একটি বিশ্বস্ত সূত্র থেকে জানা গেছে, চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে পূজাকে ব্রেক দেয় দেশের বড় প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়া। তবে হালে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে পূজার সর্ম্পকে চির ধরেছে। সূত্র মতে – জাজ এর সঙ্গে পূজা চেরির সম্পর্কে ফাটল ধরার সুযোগকে কাজে লাগিয়েই আমেরিকা প্রবাসী ওই প্রযোজক তাকে নিয়ে ছবি নির্মাণের দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। আর এটা মূলত শুরু হয় জাজ এর বাইরে গিয়ে এই নায়িকা যখন ‘হৃদিতা’ ছবিতে অভিনয় করেন। শোনা যায়, এক্ষেত্রেও আমেরিকা প্রবাসী ওই প্রযোজক অনুঘটক হিসেবে কাজ করেছেন পূজাকে তার ছবির নায়িকা হিসেবে পাওয়ার আশায়।

এদিকে ‘হৃদিতা’ ছবির পর জাজ এর বাইরে আরেক ছবি ‘গলুই’তে শাকিবের সঙ্গে অভিনয় করেন পূজা চেরি। এই ঈদুল ফিতরে প্রেক্ষাগৃহে এটি মুক্তি পাবে। খোরশেদ আলম খসরু প্রযোজিত ও এস এ হক অলিক পরিচালিত ‘গলুই’ ছবির মুক্তি এবং আমেরিকা যাওয়ার উপলক্ষ্য খুঁজে পেয়ে বেশ ফুরফুরা মেজাজে রয়েছেন এই নায়িকা। চলতি সপ্তাহেই তার ‘নাকফুল’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করতে সিলেট যাওয়ার কথা রয়েছে।

অন্যদিকে, শাকিব খান বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। অনেকদিন আগেই শাকিব খান ঘোষণা দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে বসেই কয়েকটি ছবি নির্মাণ করার। নিজের জন্মদিনে ‘রাজকুমার’ নির্মাণের ঘোষণা দিয়ে সেই পথেই হাঁটছেন তিনি। জুলাই মাসে ছবিটির শুটিং শুরুর কথা রয়েছে। ইতিমধ্যে গুঞ্জন উঠে গেছে, উল্লিখিত সময়ের আগে যদি পূজা চেরি আমেরিকা যেতে পারেন, তবে হয়তো কপাল পুড়বে মার্কিন অভিনেত্রী কফি’র। সেক্ষেত্রে পূজাই হয়তো হবেন রাজকুমার শাকিব খানের নায়িকা।

আমেরিকা প্রবাসী ওই প্রযোজকের ঘনিষ্ঠ একজন চিত্রপরিচালক জানিয়েছেন, এমনিতেই আবিষ্কর্তার সঙ্গে পূজার সম্পর্কের ব্রেকআপ, অন্যদিকে দেশীয় চলচ্চিত্রে তার ক্যারিয়ার অনেকটাই অচল হয়ে পরছে। ইতিমধ্যে তাকে জাজ এর নির্মাণাধীন ‘ময়না’ ছবি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এই প্রক্রিয়া চলতে থাকলে দেশের চলচ্চিত্রে তিনি হয়তো খুব শীঘ্রি ছবিশুন্য পরবেন। তাই তিনি যদি আমেরিকায় যেতে পারেন, তবে তার সেখানে সেটল্ড হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। আর সেই জন্যেই তিনি আমেরিকা যেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.