রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিষেক ও মিলনমেলা

মোঃ বুলবুল ইসলাম,কুড়িগ্রাম সদর প্রতিনিধিঃ
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মতিহার ক্যাম্পাসে সারাদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজশাহী ইউনিভার্সিটি ম্যানেজমেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন RUMWA এর ২০২১ -২২ নির্বাহী পরিষদের অভিষেক এবং রাবি ৩২ ব্যাচ, ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট ১৯৮৪-৮৫ সেশনের মিলনমেলা। এই জমকালো আড়ম্বরপূর্ণ আয়োজন উদযাপন উপলক্ষে সকালে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ ডিপার্টমেন্টের সামনে থেকে র‍্যালী শুরু হয়ে প্যারিস রোড পেরিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে বীর শহীদদেরর প্রতি পুস্প স্তাবক অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়। পরবর্তীতে টিএসসিতে ব্যাপক আয়োজনে নতুন কমিটির শপথ গ্রহণ, কমিটি পরিচিতি, ফুল দিয়ে নব নির্বাচিত কমিটিকে বরণে অভিষিক্ত করা হয়।
অভিষেক ও মিলনমেলা উপকমিটির অনুষ্ঠানের আহবায়ক এই ব্যাচের বন্ধু রাবি প্রফেসর মোঃ জাফর সাদিক হিরন অনুষ্ঠান সঞ্চালনার জন্য বন্ধু এনামুলের কাছে অনুষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্ব প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানের সঞ্চালোক বন্ধু এনামুল উপকমিটির আহবায়ক,ব্যবস্থাপনা স্টাডিজ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও কমিটির সহসভাপতি,ব্যবস্থাপনা বিভাগের বর্তমান চেয়ারম্যান, RUMWA কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ও সাংগঠনিক সম্পাদককে মঞ্চে নিজ নিজ আসন গ্রহনের জন্য অনুরোধ করেন।
আসন গ্রহনের পর সম্মিলিত ভাবে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের পর সঞ্চালোক আমাদের পরলোকগত শ্রদ্ধেয় শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ও শিক্ষক এসএম নেওয়াজ আলী সহ আমাদের প্রাণপ্রিয় বিদেহী বন্ধুদের আত্নার শান্তি কামনায় উপস্থিত সকলকে ১মিনিট দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই কমিটির সকল সদস্যদের শপথ বাক্য উচ্চারিত হওয়ার পর রুমা-৩২ এর সাধারণ সদস্যরা কমিটির সকল সদস্যদেরকে ফুল দিয়ে বরন করে নেয়।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই রুমা-৩২ কমিটির সহ-সভাপতি এবং আহবায়ক মোঃ জাফর সাদিক হিরণ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আব্দুল কাইয়ুম রনজু, সাধারণ সম্পাদক এরশাদ রাফি তুহিন, ব্যবস্থাপনা বিভাগের বর্তমান চেয়ারম্যান ও কমিটির উপদেষ্টা মোঃওহিদুল ইসলাম জিন্নাহ এবং সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দীন শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।
পরে অনুষ্ঠানের প্রাণ শ্রদ্ধেয় শিক্ষক মন্ডলি প্রফেসর আনিসুর রহমান, প্রফেসর মোখলেছুর রহমান, প্রফেসর মলয় কুমার ভৌমিক,ও প্রফেসর মাহবুব কবীর স্যার অনুষ্ঠানে উপস্থিত হলে স্যারদেরকে সভাপতি নাসির , সাধারণ সম্পাদক তুহিন,ও সাংগঠনিক সম্পাদক রনজু,ও কমিটির উপদেষ্টা এনামুল সম্মানিত স্যারদের কে ফুল ও ক্রেষ্ট উপহার প্রদান করেন।
পরবর্তীতে স্মৃতি চারন অনুষ্ঠানে বন্ধু শাহীন, শ্যামল, রুবেল সহ অনেক বন্ধুদের পাশাপাশি শ্রদ্ধেয় শিক্ষকবৃন্দ আমাদের পাঠদানের স্মৃতিচারনের মাধ্যমে আমাদের সবার সুন্দর জীবন কামনা করে আশির্বাদ করেন।
অনুষ্ঠানের মাঝামাঝি সময়ে পক্ষাঘাতগ্রস্ত বন্ধু আজিজ ও বন্ধু জামিল অনুষ্ঠানে উপস্থিত হলে বন্ধুদের মধ্যে ভারাক্রান্ত মনের উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে ,যা সকল বন্ধুদেরকে আরও একবার রুমা-৩২ পরিবারে একত্রিত হাওয়ায় শক্তি সঞ্চার অনুপ্রানিত করে।
দুপুরে সাময়িক বিরতিতে কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায় জমজমাট মধ্যাহ্ন ভোজের পর নিজস্ব শিল্পীর সমন্বয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্টিত হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পর বন্ধু আজিজ বন্ধুদের অনুরোধে তার পক্ষাঘাত বিবরনের দিয়ে আগামিতে অনুষ্টান ২ দিনের জন্য আয়োজনের আবেদন করলে সকল বন্ধু উচ্ছাসে তার প্রতি সমর্থন জ্ঞাপন করে।
ঐতিহাসিক সিলসিলা থেকে সরবরাহকৃত নাস্তা বিতরণ করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাস যোগে পদ্মার টি বাঁধে রাজশাহীর বিখ্যাত কালাই রুটির দিয়ে নৈশভোজের পর অনুষ্ঠানের সঞ্চালোক বন্ধু এনামুল সভাপতির অনুমতিক্রমে আগামীতে আবারও দেখা হবে এই আশা ব্যক্ত করে সকলে সুস্বাস্থ্য কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করে।
উপস্থিত সকল বন্ধুকে লাল ব্লেজার, রুমা লগো সম্বলিত আকর্ষণীয় ক্রেস্ট, স্মরণিকা, তোয়ালে, কলম, কোটপিন উপহার হিসেবে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.