বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান হাজি মো. জালাল উদ্দিন আর নেই।

শেয়ার করুন

ষ্টাফ রিপোর্ট:
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান হাজি মো. জালাল উদ্দিন (৮২) আর নেই।
বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ২টার দিকে উপজেলার মোদেরগাঁও নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নি:শ^াস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহ ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।
মরহুমের জেষ্ট পুত্র আবু সুফিয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমার পিতা বার্ধক্যজনিত কারনে ও দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে দ্বীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়িতে শয্যাশায়ী ছিলেন।
জালাল উদ্দিন উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের মোদেরগাঁও গ্রামের প্রয়াত আব্দুর রাজ্জাকের জেষ্ট পুত্র। তিনি উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসাবে দুই মেয়াদে দায়িত্ব্ পালন করে গেছেন। একাধারে তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও ৩৬০ আউলিয়ার অন্যতম সঙ্গী লাউরগড় মোকামপাড়াস্থ হযরত শাহ আরেফিন (রহ.) আস্থানা পরিচালনা কমিটির সহ সভাপতির দায়িত্বপালন করে গেছেন।
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৮ ছেলে ৩ মেয়ে সহ অসংখ্য আত্বীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
বাদাঘাট সরকারি কলেজে প্রতিষ্ঠায় উদ্যোগ গ্রহন, একজন সালিসি ব্যাক্তিত্ব হিসাবে জালাল উদ্দিনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষজন ছাড়াও দেশ -বিদেশে থাকা শুভানুধ্যায়ীগণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকের মাধ্যমে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।
এদিকে দৈনিক যুগান্তরের স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক হাবিব সরোয়ার আজাদ বুধবার রাতেই তাৎক্ষণিকভাবে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে উপজেলার সালিসী ব্যাক্তিত্ব, শিক্ষানূরাগী,প্রাক্তন চেয়ারম্যান হাজি মো. জালাল উদ্দিনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। বিবৃতিতে তিনি মরহুমের বিদেহি আত্বার মাগফিরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।।।
সিলেট, সুনামগঞ্জ।১৩.০১.২২

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।