বড়াইগ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নগদ অর্থসহ ১৩টি ঘর পুড়ে ছাই

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরের বড়াইগ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নগদ অর্থসহ ৪টি বাড়ির ১৩টি ঘর পুড়ে গেছে। এতে প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। এ অগ্নিকান্ডে নাতনির বিয়ের জন্য গৃহকর্তার রাখা নগদ ৪ লক্ষ টাকা ও ৫ টি ছাগল ঘটনা স্থলেই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার মসিন্দা গ্রামের সাত্তার আলী খানসহ তার ৩ ছেলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্থ আকবর আলী জানান, রাত আনুমানিক ১২টার দিকে নিজ শয়ন কক্ষের টিনের চালে আগুন দেখতে পেয়ে দ্রুত উঠে দরজা খোলার চেষ্টা করি। কিন্তু দরজার বাহির থেকে ছিকল আটকানো ছিল। খুলতে না পেরে দরজা ভেঙ্গে পরিবারসহ কক্ষ থেকে বের হয়ে দেখি বাবা সাত্তার আালী খাঁন এবং ভাই নাজিম ও নাসিরের ঘরে দাউ-দাউ করে আগুন জ্বলছে। আমাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে অন্যদের ঘরের দরজা খুলে দেয়। এমতাবস্থায় প্রতিবেশীরা বিভিন্নভাবে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে ও বনপাড়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ক্ষতিগ্রস্থ সাত্তার আালী খান জানান, শুক্রবার আমার নাতনী তথা বড় ছেলের মেয়ে আশা খাতুনের বিয়ের দিনধার্য্য ছিল। এ উপলক্ষে ঘরে নগদ ৪ লক্ষ টাকা ও বিয়ের আয়োজনের যাবতীয় উপকরণ কেনা ছিলো। এ সকল সহ আগুনে বাড়ির টিভি, ফ্রিজ, আসবাবপত্রসহ যাবতীয় মালামাল পুড়ে ধ্বংস হয়ে গেছে।

এ সময় পরিবারের সদস্যরা জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষরা এ নৃশংস ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

ঊনপাড়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার আকরামুল হাসান তুষার জানান, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ক্ষতিগ্রস্থদের তাৎক্ষণিক অতীব জরুরী সহায়তা প্রদান করেছেন। তিনি এ ব্যাপারে আরও সহায়তা প্রদানের আশ^াস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.