লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিএসএফের বিরুদ্ধে বসতবাড়িতে হামলার অভিযোগ

শেয়ার করুন

এস.বি-সুজন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়নে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্যদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে বসতবাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় তারা ককটেল বিস্ফোরণ করেছে বলে অভিযোগ সীমান্তবাসীর।

এ সময় ভয়ে বাড়ী থেকে পালাতে গিয়ে দুই নারী আহত হয়েছেন। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে ওই উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পকেট নামেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ৪৭ বিএসএফের ফুলবাড়ী ক্যাম্পের একটি টহলদল বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে। তারা ওই এলাকায় নুরুল হক ওরফে নুরল পরীর ছেলে আয়নাল হকের বসতবাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় তারা বসতবাড়ির গেট ও বেড়া ভাঙচুর করেন। ভয়ে পালাতে গিয়ে আয়নালের মা মনোয়ারা বেগম ও শাশুড়ি আনো বেগম আহত হয়েছেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই সময় বিএসএফের সদস্যরা ককটেল বিস্ফোরণের করেছেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) সিঙ্গিমারী ক্যাম্পের টহল দল।

৬১ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের তিস্তা ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মীর হাসান মো. শাহরিয়ার মাহমুদ এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এর প্রতিবাদ জানিয়েছি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।