কবর খনক জুড়ীর লাদেন মোল্লার দাফন সম্পন্ন

জুড়ী সংবাদদাতা
মৌলভীবাজার জেলার প্রায় উপজেলায় এবং পাশ্ববর্তী সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার যেকোন মুসলমান মানুষ মারা গেলে কবর খননের জন্য সংবাদ দেওয়া হতো লাদেন মোল্লাকে।অনেক সময় কেউ খবর না দিলে ও নিজ থেকে মারা যাওয়ার খবর শুনলেই তার গাড়ী,কোদাল,কাস্তি নিয়ে হাজির হয়ে কবর খনন করতেন।কোন ধরনের বিনিময় ছাড়াই প্রায় ১৮০০ কবর খনক এই লাদেন মোল্লা আর নেই।
জুড়ী উপজেলার শাহপুর গ্রামের বাসিন্দা হাজী শফিক আহমদ (লাদেন মোল্লা) গত ১৯ আগষ্ট সকাল ৫.৫০ মিনিটে সিলেটের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।আজ ২০ আগষ্ট সকাল ১১ টায় হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে শাহপুর জামেয়া মাদ্রাসা মাঠে তার জানাযার পর স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর।মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী ১ মেয়ে ও ২ ছেলে রেখে গেছেন।
পরিবার সূত্রে জানা যায়,গত ১৫ আগষ্ট শরীরের ব্যথা অনুভব করলে প্রথমে কুলাউড়া পরবর্তীতে সিলেটের বটেশ্বর ইমেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।সেখানে অবস্থার অবণতি হলে প্রায় ৩ দিন আইসিইউতে থাকার পর বুধবার ভোরে তিনি মারা যান।

পরোপকারী এই মানুষটি দীর্ঘদিন প্রবাসে থেকে ২০০৩ সালে বাড়িতে আসেন।তারপর থেকে নিজের গাড়ী চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।পাশাপাশি কোথাও কেউ মারা গেলে তিনি সেচ্ছায় কবর খনন করতেন।যত দূর হোক তিনি তার গাড়ি চালিয়ে সেখানে যেতেন।এতে কোন ধরনের পারিশ্রমিক নিতেন না।পরোপকারী এই মানুষের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *