ফুলবাড়ীতে ব্যবসায়ীকে রাতভর আটকে রেখে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তপন দাবি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ইলেকট্রনিক ব্যবসায়ীকে রাতভর আটকে রেখে নির্যাতন ও মুক্তিপণের দাবি করে সন্ত্রাসীরা। গতকাল রাত আনুমানিক সারে ৯ ঘটিকার সময় ফুলবাড়ী কলেজ মোড় থেকে স্কুল এর মাঝা মাঝি স্থানে পৌঁছাতেই চার পাচ জন সন্ত্রাসী অতর্কিত ভাবে এলোপাথাড়ি মার ডাং করে ইলেকট্রনিক ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাককে। সে বিভিন্ন দোকানে ইলেকট্রনিক মালামাল বিক্রি করে বলে জানাগেছে।

ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক জানায়, আমাকে মার ডাং করে আমার নিকট থেকে টাকা পয়শা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে ককমদারটারী গ্রামের একটি নির্জন বাড়ীতে সারারাত নির্যাতন করে মুক্তিপন দাবি করে। আমার চিৎকার শুনে এলাকার মানুষ টের পাবে বলে পরিকল্পনা করে
রাত ভোর হলে,সন্ত্রাসীরা মোবাইলে যোগাযোগ করে অন্যত্র নিয়ে নির্যাতনের পরিকল্পনা করে।

আজ সকালে অন্যত্র নেয়ার পথে স্থানীয় লোকজন দেখে আমি চিৎকার করলে আমাকে তারা সন্ত্রাসীদের হাত থেকে উদ্ধার করে ফুলবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করে।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমাকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরি মেরে আহত করে পাচ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবি করে। আব্দুর রাজ্জাক কাশিপুর ইউনিয়নের আজোয়াটারী গ্রামের শাহাদত হোসেনের পুত্র।

ভোক্তভোগীর আব্দুর রাজ্জাক জানায় কলমদারটারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিছনের গ্রামের জাহাঙ্গীর নামের এক লোকের বাড়ীতে আমাকে সাজু,মোবারেশ্বর,মনি,বুলবুল সারারাত নির্যাতন করে মুক্তিপন দাবি করে। এ ব্যপারে রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত কোন মামলা হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.