বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বসতবাড়িতে লুটপাট ও গৃহবধূ গণধর্ষণ

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির:
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বসতবাড়িতে লুটপাট ও গৃহবধুকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ঝিলবুনিয়া গ্রামের বিন্দু ডাকুয়ার বাড়িতে । অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোনিয়া পারভীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সরেজমিন ও অভিযোগে জানা গেছে, অরবিন্দ ওরফে বিন্দু ডাকুয়া (৫০), তার স্ত্রী(৪০) ও কলেজ পড়–য়া ছেলে চন্দন ডাকুয়া(১৮) প্রতিদিনকার মত রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পরে। রাত আনুমানিক ১টা থেকে দেড়টার দিকে বসত ঘরের সামনের পিড়ায় সিঁদ কেটে ৪ জনের মুখোশধারী দুর্বৃত্ত ঘরে প্রবেশ করে। এরপর দেশীয় ধারালো অস্ত্রের মুখে গৃহকর্তা বিন্দু ডাকুয়া ও ছেলে চন্দন ডাকুয়ার হাত, পা ও মুখ বেঁধে একটি কক্ষে জিম্মি করে রাখে। তারা প্রায় ৩ ঘন্টার মত অবস্থান করে সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তরা পালা করে ওই গৃহবধুকে ধর্ষণ ঘরে থাকা নগদ ৫ হাজার টাকা ও পৌনে ২ ভরি স্বর্ণালংকার ও ঘরে থাকা ২ বস্তা শুকনা সুপারী নিয়ে যায়। ভোর রাতে ছেলে চন্দন ডাকুয়া কৌশলে নিজে সহ বাবার বাঁধনমুক্ত করে।
মোরেলগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী ও দুপুর ২ টার দিকে মোরেলগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোনিয়া পারভীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে পাশবিক নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধুকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এ বিষয়ে থানা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা মিলেছে। ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য গৃহবধুকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.